blog

মুখের হারানো জেল্লা ফিরিয়ে আনুন

মুখের স্বাভাবিক জেল্লা তখনই হারায় যখন ত্বকে মৃত কোষ জমে যায় এবং ত্বক পুষ্টিহীনতায় ভোগে। উজ্জ্বলতা ধরে রাখার জন্য নিয়ম করে ক্লিনজিং-টোনিং-ময়েশ্চারাইজিং এবং এর পরবর্তী ধাপগুলো মেইনটেইন করাটা মাঝে মাঝে কঠিন হয়ে পড়ে। তাই চটজলদি সমাধান নারীরা বেশি খোঁজেন।

মুখের হারানো জেল্লা ফিরিয়ে আনতে চান? মাত্র ১০দিন ১০টি ফেসপ্যাকের যেকোন একটি ব্যবহার করলেই পাবেন ইনস্ট্যান্ট জেল্লা। চলুন জেনে নেই বিস্তারিত।

  • কি কি লাগবে
  • নারিকেল তেল – ২ টেবিল চামচ
  • গ্লিসারিন – ১ টেবিল চামচ
  • গোলাপজল – ১ টেবিল চামচ
  • ভিটামিন ই ক্যাপসুল – ১টি
  • পাতিলেবুর রস – ২ চা চামচ
  • জল – পরিমাণমতো

কিভাবে ব্যবহার করবেন

প্রতিটি উপাদান খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ গোসলের পরে এবং রাতে ঘুমানোর আগে ত্বকে মাসাজ করতে হবে। মাসাজের আগে অবশ্যই মুখ, হাত, পা ভালো করে ধুয়ে নিবেন।

যেহেতু এই মিশ্রণ মুখের পাশাপাশি শরীরের অন্যান্য জায়গায় লাগানো যায়, সেহেতু এক প্যাকেই পাবেন উজ্জ্বল বডি। এই ফেসপ্যাকে আপনার শরীরের কালো দাগ, স্ট্রেচ মার্ক, বলিরেখা, ব্ল্যাকহেডস ইত্যাদি নিমেষেই দূর হবে। বিশেষ করে গরমকালের জন্য উপযোগী এই ফেসপ্যাক ব্যবহার করলে আলাদা করে হোয়াইটেনিং ক্রিম বা লোশন লাগবেনা।

শিশু এবং যেকোন বয়সের নারী-পুরুষ এই প্যাক সপ্তাহে দুইদিন ব্যবহার করতে পারবেন। তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারী এই প্যাক লাগিয়ে ৩০মিনিট অপেক্ষা করে এরপর ভালো ক্লিনজার দিয়ে ধুয়ে ফেলবেন।

  • কি কি লাগবে
  • হলুদ গুঁড়া – আধা চা চামচ
  • বেসন – ৪ চা চামচ
  • দুধ – ঘন মিশ্রণ বানাতে যতটুকু লাগে

কিভাবে ব্যবহার করবেন

হলুদ এবং বেসনের সাথে পরিমাণমতো দুধ নিয়ে মিশ্রণ বানিয়ে নিন। তারপর প্যাকটা মুখে ও গলায় সমানভাবে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে দিন। এরপরে স্বাভাবিক ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইদিন এই প্যাক ব্যবহার করবেন, হলুদের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ত্বকের জেল্লা বাড়িয়ে তুলবে।

  • কি কি লাগবে
  • পাকা পেঁপে (চটকানো) – ১ টেবিল চামচ
  • শসার রস – ২ চা চামচ
  • পাকা কলা (চটকানো) – অর্ধেকটা

কিভাবে ব্যবহার করবেন

সব একসাথে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন। ৩০ মিনিট পরে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললেই পাবেন চটজলদি উজ্জ্বল ত্বক। পেঁপেতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, সি, এবং বিএইচএ। এই প্যাক ত্বকের প্রয়োজনীয় পুষ্টির চাহিদা পূরণ করবে এবং মৃত কোষ পরিষ্কার করবে।

  • কি কি লাগবে
  • তরল দুধ – ১ টেবিল চামচ
  • মধু – ১ টেবিল চামচ
  • কেশর – ৫-৬ টি সুতা

কিভাবে ব্যবহার করবেন

দুধ, মধু, এবং কেশর মিশিয়ে ৫ মিনিট রেখে দিন। ৫ মিনিট পরে প্যাকটা মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। সবশেষে ধুয়ে ফেলুন। কেশর ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর জন্য দারুণ কাজ করে। সপ্তাহে তিন বা চারদিন ব্যবহার করলে খুব ভালো ফল পাবেন

  • কি কি লাগবে
  • ময়দা – ১ টেবিল চামচ
  • বেসন – ২ টেবিল চামচ
  • পাতিলেবুর রস – ১ চা চামচ
  • তরল দুধ – ১ টেবিল চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন

সব উপাদান একসাথে মিশিয়ে মুখে ১৫ থেকে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। প্যাকটি যখন শুকিয়ে আসবে তখন পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ময়দার ফেসপ্যাক দিয়ে খুব সহজেই অল্প সময়ে ত্বককে জেল্লাদার করতে পারবেন। সপ্তাহে দুইদিন এটি ব্যবহার করবেন।

  • কি কি লাগবে
  • মুগ ডালের বেসন – ১ টেবিল চামচ
  • গুঁড়া দুধ – ১ টেবিল চামচ
  • খাঁটি মধু – আধা টেবিল চামচ
  • লেবুর রস – আধা টেবিল চামচ
  • তরল দুধ – ২ টেবিল চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন

প্রথমে একটি বাটিতে সব উপকরণ মিশিয়ে নিন। এরপরে প্যাকটা প্রথমে মুখে যতটুকু লাগে ততটুকু লাগান। এই প্যাকটা শুকাতে দেয়া যাবে না, ভেজা ভেজা রাখতে হবে। প্রথমবার মুখে লাগানোর পরে বাড়তি যেটুকু থাকবে তাই ৫ মিনিট পর পর মুখে লাগিয়ে নিবেন।

এভাবে ২৫ মিনিট প্যাক ব্যবহারের পর ৫ মিনিট ধরে প্যাকটা মুখে ভালোমতো মাসাজ করে নিবেন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিনদিন ব্যবহার করলে ত্বক হবে ভেতর থেকে উজ্জ্বল।

  • কি কি লাগবে
  • দুধের সর – ১ টেবিল চামচ
  • বেসন – ২ টেবিল চামচ
  • হলুদ গুঁড়া – ১ টেবিল চামচ
  • গোলাপজল – ৩ টেবিল চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন

আগে মিশ্রণ বানিয়ে মুখে ৫ মিনিট লাগিয়ে রাখবেন। ৫ মিনিট পরে মাসাজ করা শুরু করুন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর্যন্ত মাসাজ করতে থাকুন, প্যাক আস্তে আস্তে ঝরে পড়তে শুরু করবে। এবং স্কিনের ময়লাও পরিষ্কার হয়ে যাবে।
প্যাক ঝরে পড়লে সাথে সাথে মুখ ধোবেন না। ২ ঘন্টা পরে স্বাভাবিক পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। মুখ ধোয়ার পরবর্তী ১৪ ঘন্টার মধ্যে কোন সাবান বা ফেসওয়াশ ব্যবহার করবেন না। শুষ্ক ত্বকের জন্য বিশেষভাবে উপযোগী এই প্যাক সপ্তাহে দুইদিন ব্যবহার করবেন।

  • কি কি লাগবে
  • তরল দুধ – ১ টেবিল চামচ
  • মধু – ১ টেবিল চামচ
  • লেবুর রস – ৫-৬ ফোঁটা

কিভাবে ব্যবহার করবেন

পরিষ্কার মুখে মিশ্রণটা লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে দিন এবং এরপরে মুখ ধুয়ে ফেলুন। মুখের গভীর থেকে ময়লা পরিষ্কার ও প্রাকৃতিক ব্লিচের জন্য লেবুর রস বিখ্যাত। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই প্যাক লাগালে ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে।

  • কি কি লাগবে
  • খাঁটি মধু – আধা টেবিল চামচ
  • টকদই – ১ টেবিল চামচ
  • শসার রস – ১ টেবিল চামচ
  • আলুর রস – ১ টেবিল চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন

মধু, টকদই, শসার রস, আলুর রস সব একসাথে ভালো করে মিশিয়ে নিন। মুখে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রেখে দিন। তারপর মুখ ধোয়ার আগে ৫ মিনিট ধরে সার্কুলার মোশনে মাসাজ করে এরপরে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিনদিন ব্যবহারের ফলে নিষ্প্রাণ ত্বক দেখাবে সুন্দর, জেল্লাদার, ও লাবণ্যময়।

  • কি কি লাগবে
  • ময়দা – ২ টেবিল চামচ
  • হলুদ বাটা – ১ চা চামচ
  • আমন্ড অয়েল – ১ টেবিল চামচ
  • তরল দুধ – ৩ টেবিল চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন

সব একসাথে মিশিয়ে মসৃণ পেস্ট বানিয়ে নিন, একদম ক্রিমের মতো। বানানোর পরে এই পেস্ট মুখে সমানভাবে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। তারপরে স্বাভাবিক মাত্রার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক ব্যবহারের ১২ ঘন্টার মধ্যে মুখে সাবান লাগাবেন না। সপ্তাহে দুইদিন ব্যবহারে ত্বকের জৌলুস ফিরে আসতে বাধ্য।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


%d bloggers like this: