blog

ত্বকের কর্কট (Skin cancer) রোগের সম্ভাবনা কমাতে রোজ সকালে এই ফলের রস খান

আটলান্টিক অঞ্চলের নির্দিষ্ট এলাকা থেকে সম্পূর্ণ পরিপক্ক বন্য ব্লুবেরি দিয়ে এক গ্লাস তাজা ব্লুবেরি জুস প্রস্তুত করেছিলেন। সেই রস পরে পলিফেনল দিয়ে পুষ্ট করা হয়েছিল।

ত্বকের কোষের অস্বাভাবিক বৃদ্ধিকে স্কিন ক্যান্সার বোঝায়। প্রায়শই সূর্যের সংস্পর্শে আসার ফলে শুরু হয় এই রোগ। তবে শরীরের যেসব অংশ সূর্যের আলোর সংস্পর্শে আসে না সেখানেও ত্বকের ক্যান্সার হতে পারে। সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি (UV) বিকিরণের প্রভাবে ত্বককে ক্ষতিগ্রস্ত করে তোলে। তাই ঘরের বাইরে বেরোনোর ​​আগে নিয়মিত সানস্ক্রিন প্রয়োগের মাধ্যমে ত্বকের ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। নয়া গবেষণায় জানা গিয়েছে, একটি নির্দিষ্ট ধরণের ফলের রস ত্বকের ক্যানসার নিরাময়ের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আমেরিকান একাডেমি অফ ডার্মাটোলজি অ্যাসোসিয়েশন (এএডিএ) এর একটি অনুমান অনুসারে গত পাঁচ দশকে,ত্বকের ক্যান্সার নির্ণয় ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে যে, গড়ে ১০ হাজার ব্যক্তির ত্বকের ক্যান্সার ধরা পড়ে । তাঁদের বেশিরভাগই মেলানোমার সঙ্গে লড়াই করে চলেছেন। এটি ত্বকের ক্যান্সারের সবচেয়ে মারাত্মক রূপ। তবে সুসংবাদটি হল বিজ্ঞানীদের মতে, আপনার ডায়েটে নতুন পানীয় যোগ করলে ক্যানসারের ঝুঁকি এড়ানোর একটি সহজ উপায় রয়েছে।

ফল ও শাকসবজি সমৃদ্ধ খাবার, যাতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পরিমাণ অনেকটাই বেশি রয়েছে, সেইসব ফল বা সবজি ক্যানসারের প্রবণতা কমাতে সবচেয়ে ভাল কাজ করে। এর জন্য কানাডার অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টি এবং সেলুলার বিজ্ঞানীরা ত্বকের ক্যানসারের সম্ভাবনা কমাতে ব্লুবেরির রসের প্রভাব পরীক্ষা করেছেন। গবেষণাটি জার্নাল অফ ক্যান্সার প্রিভেনশনে প্রকাশিত হয়েছে।

ব্লুবেরি জুস এবং ত্বক ক্যান্সারের সম্ভাবনা

উচ্চ অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের উপাদান হিসেবে ব্লুবেরির স্বাস্থ্যকর উপকারিতা অপরিহার্য। সত্যি বলতে এটি হল পাওয়ার হাউস। সাইট্রাসি বেরিগুলি ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে। গবেষকরা আটলান্টিক অঞ্চলের নির্দিষ্ট এলাকা থেকে সম্পূর্ণ পরিপক্ক বন্য ব্লুবেরি দিয়ে এক গ্লাস তাজা ব্লুবেরি জুস প্রস্তুত করেছিলেন। সেই রস পরে পলিফেনল দিয়ে পুষ্ট করা হয়েছিল।

বিশেষজ্ঞরা লক্ষ্য করেছেন যে পলিফেনল সমৃদ্ধ ব্লুবেরির রস ক্যান্সার স্টেম কোষের বিস্তারকে বাধা দেয়। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই পানীয়টিতে অ্যান্টি-ক্যান্সার এবং অ্যান্টি-মেটাস্ট্যাটিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা ত্বকের ক্যান্সারের ঝুঁকির বিরুদ্ধে ভাল কাজ করে। এর মানে হল যে এই সুবিধাগুলির জন্য ল্যাব-প্রস্তুত পলিফেনল সমৃদ্ধ ব্লুবেরি জুসের প্রয়োজন নেই। এবং শুধুমাত্র জুস আকারে নয়, সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য এই সুপারফুডের সর্বাধিক ব্যবহার করতে কেউ তাদের সকালের বাটিতে ওটমিল বা একটি লম্বা গ্লাস স্মুদিতে ব্লুবেরি অন্তর্ভুক্ত করতে পারে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


%d bloggers like this: