blog

মধুর উপকারিতা যা আপনার অজানা

মধু একটি প্রাকৃতিক গুণাগুণ-সম্পন্ন অর্ধ তরল খাদ্য । বিভিন্ন উপকারিতার জন্য বিশ্বের সকল দেশের মানুষ মধু খাদ্য হিসেবে, চিকিৎসা ও সৌন্দর্যচর্চা সহ বিভিন্ন প্রয়োজনে ব্যবহার করেন । নবজাতক শিশুর জন্মের পর পর তার দাদী-নানীরা তার মুখে মধু দেন, অর্থাৎ সব বয়সের মানুষ এর দ্বারা উপকৃত হতে পারে ।

মধু কি

মধু হচ্ছে এক প্রকার অর্ধ তরল পদার্থ, ক্ষুদ্র প্রাণী মৌমাছি বিভিন্ন ফুল থেকে নেকটার বা পুষ্পরস সংগ্রহ করে নিজ বাসায় জমা করে ।

মধুতে বিদ্যমান উপাদান

বাংলাদেশের জাতীয় মধু বোর্ডের সংজ্ঞানুযায়ী, “মধু হলো একটি বিশুদ্ধ পদার্থ যাতে পানি বা অন্য কোনো মিষ্টিকারক পদার্থ মিশ্রিত করা হয় না ।” মধুর অসাধারণ গুণের কারণে প্রাচীনকাল থেকেই এর ব্যবহার সম্পর্কে মানুষ অবগত ছিল । এতে আছে ভিটামিন বি১, বি২, বি৩, বি৫, বি৬, আয়োডিন, কপার, জিংক সহ আরও অনেক অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান, যা আমাদের দেহের বাহ্যিক, অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করার গুন ধারণ করে ।

এখন মধুর বিভিন্ন উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক

১. ঘুমাতে যাওয়ার আগে মধু খেলে মস্তিষ্কের ক্রিয়াকর্ম সঠিকভাবে চলতে সাহায্য করে । মধুতে বিদ্যমান উপাদান, ফ্রুক্টোজ মানবদেহের যকৃতে শক্তি সঞ্চয় করে এবং তা মস্তিষ্কে শক্তি সরবরাহ করে ।

২. বিভিন্ন ভাইরাসজনিত রোগ, বিশেষ করে সর্দি-কাশিতে মধুর প্রভাব খুবই কার্য্কর । তাছাড়া মধু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে; যে কোনো সংক্রামক রোগ থেকে রক্ষা করে ।

৩. বিভিন্ন গবেষণা থেকে জানা যায়, পাকস্থলির বিভিন্ন রোগ, যেমন-গ্যাস্ট্রিক-আলসার থেকে পরিত্রাণ পেতে নিয়মিত মধু সেবন করা দরকার ।

৪. মধুতে আছে প্রাকৃতিক অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসমূহ যা সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে।

৫. মধু ওজন কমাতেও সাহায্য করে । প্রতিদিন সকালে ১ গ্লাস গরম পানিতে ১ চামচ মধু মিশিয়ে পান করুন। এতে হজম শক্তি বৃদ্ধি পায়, এতে খাবারের ক্যালোরি দ্রুত ক্ষয় হয় ।

. বর্তমানে জার্মান ও অস্ট্রেলিয়াতে গবেষণায় জানা যায়, পাকস্থলী ও হাড়ের ক্যান্সার নিরাময়ে মধু ভূমিকা রাখতে পারে । এজন্য এক টেবিল চামচ মধু ও দারুচিনির গুঁড়ো মিশিয়ে পান করার পরামর্শ দেওয়া হয় ।

মধুর উপকারিতা আরও অনেক যা গুণে শেষ করার কঠিন । শরীর সুস্থ্য রাখা, রোগ প্রতিরোধ, রোগের প্রতিকার সহ সকল ক্ষেত্রেই মধু ইতিবাচক প্রভাব রাখে। সবশেষে কথা, মধুর উপকারিতার অনেক । ভবিষ্যত গবেষণায় এর আরও উপকারিতা উদ্ভাবিত হবে ।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


%d bloggers like this: