blog

চোখের পাতা পাতলা? ঘন করুন এই ঘরোয়া দশটি উপায়ে

চোখ হলো মনের আয়না। তাই চোখ যে সাজগোজ ও রূপ-সৌন্দর্যের ভিত্তিতে কতটা ভূমিকা রাখে তা বলা নিষ্প্রয়োজন। চোখের পাতা বড়ো আর ঘন করার ইচ্ছে সবারই থাকে, এর জন্য অনেকেই আইল্যাশ, ডার্ক পাউডার ও মাস্কারার ব্যবহার করেন যেগুলো কৃত্রিম কসমেটিকস।

এগুলো কখনো দীর্ঘস্থায়ী সমধান বা সম্পুর্ন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত নয়। তাই এই প্রতিবেদনে থাকছে আপনাদের জন্য এমন কিছু ঘরোয়া কৌশল যা দিয়ে আপনার চোখের আকর্ষণ যাবে বহুগুণে বেড়ে। কালোহরিণ চোখ বা পটলচেরা চোখ কবিতায় নয় বাস্তবে হবে হাতের মুঠোয় আর আপনি হবেন সবার “নয়নমণি”।

১। কম্বিংঃ-

আমাদের চোখের পাতা অবিন্যস্ত অবস্থায় থাকে তাই সেগুলো আঁচড়ে নিলে চোখের পাতা গোছানো ও টানটান দেখতে লাগে।

চোখের পাতা কম্বিং করতে মাস্কারা ব্রাশ ধুয়ে তাতে ভিটামিন ই তেল মাখিয়ে আলতো ভাবে অল্প অল্প চুল নিয়ে আঁচড়ে নিন। এতে খুশকি দূর হবে আর রক্তসঞ্চালন ও ভালো হবে।

২। ভেসলিন এর ভরসাঃ-

চোখের পাতা মাথার চুলের মতো তেল পায়না তাই রুক্ষ হয়ে পড়ে। এটিকে নমনীয় রাখতে আঙুলে ভেসলিন নিয়ে চোখের দুটি পাতায় লাগিয়ে নিন তবে চোখের ভেতরে যেন প্রবেশ না করে দেখবেন।

ভেসলিন রাত্রে শুতে যাবার আগে প্রয়োগ করলে বেশি সময় ধরে কার্যকরী ফল দিতে পারে।

৩। ক্যাস্টর তেলঃ-

১/২ চামচ জোজোবা অয়েল ও ১/২ চামচ অলিভ অয়েল নিয়ে মিক্স করে ব্রাশে মাখিয়ে নিয়ে চোখের পাতায় লাগান।

এই ক্যাস্টর অয়েল ফর্মুলা চোখের পল্লবের গ্ল্যান্ডে পুষ্টি যোগায় ও নতুন চুল জন্মানোর জায়গা প্রদান করে।

৪। আন্ডার ফান্ডাঃ-

ডিমের মাস্ক চোখের পাপড়ি ঘন করতে আদর্শ কারণ এর বায়টিন ও ভিটামিন বি এর যৌথ মেলবন্ধন পাতার স্বাভাবিক গ্রোথ বুস্ট করে।

এটি বানানোর জন্য একটি গোটা ডিম তার সাথে ১ টেবিলচামচ গ্লিসারিন ও ১ টেবিলচামচ পেট্রোলিয়াম জেলি মেশাতে হবে। নিয়মিত লাগান উত্তম ফল পেতে।

৫। মেকআপে সাবধানতাঃ-

চোখের পাতার আকৃতি বাড়াতে আমরা মাসকারা ইউজ করে থাকি যেটা কিন্তু খুবই ক্ষতিকারক আমাদের স্নিগ্ধ চোখের জন্য। এটি চোখকে নিস্তেজ ও প্রাণহীন করে দেয়।
তাই গ্লু যুক্ত মাসকারা চোখের পাতা শক্ত করে। যার ফলে চোখের চুল পড়ে।চোখে মেকআপ করলে তাই সপ্তাহে ২-৩ দিনের গ্যাপ নিয়ে করুন।
রাত্রে মেকআপ নিয়ে মোটেই শুতে যাবেন না। চেষ্টা করবেন সবসময় নামী কোম্পানির আই লাইনার বা আইশ্যাডো ব্যবহার করতে।

৬। গ্রীন টিঃ-

গরম জলে গ্রীন টি এর পাতা দিয়ে ফুটিয়ে নিয়ে সেটা ঠান্ডা করুন ধৈর্য্য ধরে। এবার সেই চা এর লিকার তুলোয় অল্প অল্প নিয়ে চোখে লাগান যাতে পাতা সম্পূর্ণ ভেজে।

এই জল এন্টি অক্সিডেন্ট ও ট্যানিন সমৃদ্ধ যেটি চোখের পাতার পতন রোধ করে ও সেটিকে গাঢ় করে তোলে।

৭। অভ্যাসঃ-

কথায় বলে স্বভাব যায় না মলে। আপনার যদি কোনো কারণ ছাড়াই বারবার চোখে হাত দেবার অভ্যাস থাকে তবে তা থেকে বিরত হন।

ঘুম থেকে উঠে অনেকের বদ অভ্যাস চোখ কচলে নেবার। কেউ বা এমনি চোখ চুলকে নেবার শখ রাখেন। এর ফলে অনাবশ্যক চোখের চুলের ক্ষতি করেন নিজেদের অজান্তে।

৮।সুষম খাবারঃ-

আইল্যাশ এর পারফেক্ট ঘনত্ব পেতে খাবার দাবার ও ভালোই হাত রেখে যায়। তাই রোজকার ডায়েটে আপেল, আঙ্গুর, পেয়ারা, সবুজ সব্জি, মাছ,মাংস রাখুন।

ভিটামিন এ ও সি এর সাপ্লাই কিন্তু এগুলো থেকেই আসে যেটা আপনার চোখ ও তার চুলের জন্য খুবই জরুরি।

 

 

 

 

 

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *